সদ্য পাওয়া
Desh TV Logo জাতীয়: মৌলভীবাজারের দুই জঙ্গি আস্তানায় ‘অপারেশন হিটব্যাক’ চলছে, নাসিরপুরে সোয়াতের অভিযান শুরু, বড়হাটে আরেকটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ; দুই কিলোমিটার এলাকাজুড়ে ১৪৪ ধারা অব্যাহত Desh TV Logo কুমিল্লার কোটবাড়ীতে জঙ্গি আস্তানাটি এখনও ঘিরে রেখেছে পুলিশ, ভোটের পর অভিযান Desh TV Logo আগামী ১৪ মে এফবিসিসিআই’র নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, নির্বাচন স্থগিত করে হাইকোর্টের দেওয়া রুল আপিল বিভাগে খারিজ Desh TV Logo পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে জেএমবির ৩ সদস্য আটক Desh TV Logo কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে, কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি Desh TV Logo মর্ডান হাইস্কুল কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা; বললেন, জয়-পরাজয় যাই হোক, জনগণের রায় মাথা পেতে মেনে নেবেন Desh TV Logo নির্বাচন সুষ্ঠু হলে ফলাফল মেনে নেবো: হোচ্ছা মিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ভোট দিয়ে বিএনপি প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু, দুটি কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ Desh TV Logo এখন পর্যন্ত ভোট শান্তিপূর্ণ হয়েছে, দুটি কেন্দ্রে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া যায়নি: রিটার্নিং কর্মকর্তা Desh TV Logo ২৬ নং ওয়ার্ডের বল্লভপুর কেন্দ্রের কাছ থেকে ১০টি ককটেল উদ্ধার করেছে পুলিশ Desh TV Logo ভোটগ্রহণ চলছে সুনামগঞ্জ-২ উপনির্বাচনের, ভোট দিয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়া সেনগুপ্তা, বৈরি আবহাওয়ার কারণে ভোটারদের উপস্থিতি কম Desh TV Logo আন্তর্জাতিক: ইরাকের বাগদাদে আত্মঘাতি গাড়িবোমা হামলায় নিহত ১৫ Desh TV Logo সিরিয়ায় সামরিক অভিযান শেষ করেছে তুরস্ক Desh TV Logo ঘূর্ণিঝড় ডেবি: অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডে বন্যার আশঙ্কা, স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে Desh TV Logo খেলা: ক্রিকেট: সিরিজের ৩য় ও শেষ ওয়ানডে খেলতে কলম্বোয় বাংলাদেশ দল, শনিবার খেলা Desh TV Logo ইমার্জিং কাপ: কক্সবাজারে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে পাকিস্তান Desh TV Logo ফাস্টবোলার মোহাম্মদ ইরফানকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে পিসিবি Desh TV Logo ফুটবল: ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর নামে রাখা হলো পর্তুগালের মাদেইরা দ্বীপের বিমানবন্দরের নাম, ভাস্কর্য উন্মোচন Desh TV Logo টেনিস: মায়ামি ওপেন: সিমোনা হালেপকে হারিয়ে নারী এককের সেমিফাইনালে ইয়োহানা কন্টা Desh TV Logo দেশ টিভির সংবাদ দেখুন সকাল সাড়ে ৭টা, ১০টা, বেলা ১২টা, দুপুর ২টা, বিকেল ৪টা, সন্ধ্যা ৭টা, রাত ৯টা, ১১টা এবং ১টায়

শিক্ষা বইয়ে অপ্রাসঙ্গিকভাবেই আনা হয়েছে ধর্মীয় বিষয়

শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী, ২০১৭ (১৪:৪৮)
শিক্ষা-বইয়ে-অপ্রাসঙ্গিকভাবেই-আনা-হয়েছে-ধর্মীয়-বিষয়

পাঠ্যবই

নতুন পাঠ্যপুস্তকে অসংখ্য ভুলের সঙ্গে রয়েছে নানা অসঙ্গতি এবং অপ্রাসঙ্গিক বিষয়ও— নিখাঁদ সাহিত্য ও ভাষা শিক্ষার বইয়ে অপ্রাসঙ্গিকভাবেই তুলে আনা হয়েছে ধর্মীয় বিষয়।

হিন্দুত্ববাদের দোহাই দিয়ে বাদ দেয়া হয়েছে প্রগতিশীল লেখকদের গল্প, কবিতা। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক দুই স্তরেই যুক্ত করা হয়েছে ধর্মীয় ভাবধারার একাধিক গল্প, কবিতা।

শিক্ষাবিদদের মতে, পাঠ্যবইয়ে এমন পরিবর্তন উদ্দেশ্য প্রণোদিত, সুপরিকল্পিতভাবে শিক্ষা ব্যবস্থায় মৌলবাদ ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে। বিষয়টিকে বাঙালি জাতিকে সাম্প্রদায়িকীকরণের সংকেত হিসেবে দেখছেন তারা।

এবারের পাঠ্যবইয়ে ভুলভ্রান্তির পাশাপাশি বিতর্ক সৃষ্টি করেছে নতুন লেখা যোগ করা এবং পুরনো লেখা বাদ দেয়ার বিষয়। আর নয়টি শ্রেনিরই পাঠ্যবইয়ে কোনও না কোনো ভুল, বিকৃত তথ্য, কবিতার শব্দ ফেলে দিয়ে নতুন শব্দ বসানোর নজির তো আছেই।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, প্রাথমকি ও মাধ্যমিক দুই স্তরের বাংলা বই থেকে ২০১২ সালে যে বিষয়গুলো বাদ দেয়া হয়েছিল, তার সবই ফিরে এসেছে ২০১৭ সালের সংস্করণে। আবার ২০১২ সালের বইয়ে নতুন যে বিষয় অন্তর্ভূক্ত হয়েছিল সেগুলো বাদ দেয়া হয়েছে।

প্রাথমিক স্তরের পরিমার্জিত নতুন বাংলা বইয়ে যুক্ত হয়েছে, দ্বিতীয় শ্রেনির বাংলা বইয়ে অর্ন্তভুক্ত হয়েছে ‘সবাই মিলে করি কাজ’, তৃতীয় শ্রেনিতে ‘খলিফা হযরত আবু বকর (রা.)’, চতুর্থ শ্রেনিতে ‘খলিফা হযরত ওমর (রা.)’, পঞ্চম শ্রেনিতে ‘বিদায় হজ’ ও ‘শহীদ তিতুমীর’ ‘শিক্ষাগুরুর মর্যাদা’।

আর বাদ পড়েছে, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ হুমায়ুন আজাদের লেখা ‘বই’, কবি মোস্তফা রচিত ‘প্রার্থনা’।

এরমধ্যে ‘সবাই মিলে করি কাজ’ হযরত মুহাম্মদ (সা.) জীবনচরিত ‘খলিফা হযরত আবু বকর (রা.)’ এবং ‘খলিফা হযরত ওমর (রা.)’ শীর্ষক বিষয়গুলো বাংলা বইয়ে না থাকলেও ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষায় অর্ন্তভুক্ত ছিল।

শিক্ষাবিদদের মতে, পাঠ্যবইয়ে এ পরিবর্তন ‘জাতীয় শিক্ষানীতি’ এবং সংবিধান পরিপন্থি।

হলি আর্টিজান, শোলাকিয়াসহ জঙ্গি কর্মকাণ্ডে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ততা উল্লেখ অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী করে বলেন, এ পাঠ্যপুস্তকের মধ্য দিয়ে শিশুরা মৌলবাদ শিখে বেড়ে উঠবে, যা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার গড়া বাংলাদেশের জন্য বড় ধরনের হুমকি।

মূল ধারার শিক্ষা ব্যবস্থাকে মাদ্রাসা শিক্ষার দিকে ঠেলে দিয়ে, একটি গোষ্ঠীর দাবি মেটাতে সরকার আগামী প্রজন্মকে মৌলবাদি চিন্তা ধারায় গড়ে ওঠার যে প্রক্রিয়া শুরু করেছে, তা থেকে বের হয়ে আসার তাগিদ আরেক শিক্ষাবিদের।

২০১৩ সালে সংস্করণ করা পাঠ্যপুস্তকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে বেশ কিছু সুপারিশ তুলে ধরেছিল হেফাজতে ইসলাম। বিশেষজ্ঞদের মতে, সেই দাবিরই প্রতিফলন ঘটেছে এবারের পাঠ্যপুস্তকে।

এই ক্যাটাগরীর আরও খবর

পুরনো সংবাদ

শুক্র
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
 
 
 
 
 
০১
০২
০৩
০৪
০৫
০৬
০৭
০৮
০৯
১০
১১
১২
১৩
১৪
১৫
১৬
১৭
১৮
১৯
২০
২১
২২
২৩
২৪
২৫
২৬
২৭
২৮
২৯
৩০
৩১